ভারতের সেরা হানিমুন গন্তব্য | 50 Best Honeymoon Destinations In Indiaভারতের সেরা হানিমুন গন্তব্য | 50 Best Honeymoon Destinations In India

ভারতের সেরা হানিমুন গন্তব্য (Best Honeymoon Destinations In India): হানিমুন এর ঐতিহ্য শুধু একটি নিছক ছুটি নয়, এটি একটি বিশেষ সময় যখন নবদম্পতি নির্জনে তাদের নতুন সম্পর্ক উদযাপন করতে পারে। ভারত বিশ্বজুড়ে হানিমুন গন্তব্যগুলির মধ্যে অন্যতম। আপনি যদি এই রহস্যময় দেশে আপনার বিশেষ সময় কাটানোর পরিকল্পনা করে থাকেন তবে নীচে তালিকাভুক্ত ভারতের সেরা হানিমুন গন্তব্যগুলি রয়েছে:

Table of Contents

ভারতের সেরা হানিমুন গন্তব্য (Best Honeymoon Destinations In India)

গোয়া (Goa)

গোয়া (Goa)
গোয়া (Goa) | ভারতের সেরা হানিমুন গন্তব্য

আরব সাগর উপকূলের তীরে অবস্থিত, গোয়া ভারতের সবচেয়ে মূল্যবান সমুদ্র সৈকত গন্তব্যগুলির মধ্যে একটি। ভারতের সবচেয়ে ছোট রাজ্যটি তার বহিরাগত সমুদ্র সৈকতের জন্য বিখ্যাত এবং হানিমুন এবং রোমান্টিক দম্পতিদের জন্য সবচেয়ে আকর্ষণীয় গন্তব্যগুলির মধ্যে একটি। গোয়া তার সংরক্ষিত বন্যপ্রাণী এবং প্রকৃতি সংরক্ষণের জন্যও পরিচিত যা এটিকে একটি হানিমুন হটস্পট করে তোলে।

আন্দামান দ্বীপপুঞ্জ (Andaman Islands)

আন্দামান দ্বীপপুঞ্জ (Andaman Islands)
আন্দামান দ্বীপপুঞ্জ (Andaman Islands) | Best Honeymoon Destinations In India

আন্দামান ও নিকোবর দ্বীপপুঞ্জ হল বঙ্গোপসাগরে ভারতের পূর্ব উপকূলে অবস্থিত দ্বীপগুলির একটি গ্রুপ। দ্বীপগুলি ব্রিটিশদের সময় নৌ বন্দর হিসাবে কাজ করেছিল কিন্তু এখন তাদের মনোমুগ্ধকর সৈকত এবং ঝকঝকে নীল জলের জন্য পরিচিত যা হানিমুনের জন্য উপযুক্ত করে তোলে। আন্দামান নির্জন রোমান্টিক আস্তানা এবং নির্মল সৈকতে পূর্ণ যা নবদম্পতির জন্য একটি দুর্দান্ত জায়গা করে তোলে।

আলেপ্পি (Alleppey)

আলেপ্পি (Alleppey)
আলেপ্পি (Alleppey) | Honeymoon Places in India

আলেপ্পি বা আলাপ্পুঝা একটি মনোরম উপকূলীয় শহর যেখানে বেশ কয়েকটি অভ্যন্তরীণ জলপথ, সৈকত এবং খাল রয়েছে। হানিমুনিং দম্পতিরা প্রায়ই কেরালার ব্যাক ওয়াটারের মধ্যে একটি অত্যন্ত রোমান্টিক মুহূর্ত অনুভব করতে এবং দেশটির দেওয়া সেরা প্রকৃতি উপভোগ করতে হাউসবোটে থাকতে পারেন।

আগ্রা (Agra)

আগ্রা (Agra)
আগ্রা (Agra) | ভারতের সবচেয়ে আকর্ষণীয় হানিমুন স্পট

আগ্রা শহরে তাজমহলের অবস্থান, যা প্রেমের চিরন্তন স্মৃতিস্তম্ভ। শহরটি কেবল তার ঐতিহাসিক গুরুত্বের জন্যই পরিচিত নয়, এটিকে ভারতের সেরা হানিমুন গন্তব্যগুলির মধ্যে একটি হিসাবেও অভিহিত করা হয়। শহরটিতে বিলাসবহুল হোটেল এবং রিসর্টের আধিক্য রয়েছে যা আপনার প্রিয়জনের সাথে একটি নির্মল অবকাশ উপভোগ করার জন্য উপযুক্ত।

উদয়পুর (Udaipur)

উদয়পুর (Udaipur)

হ্রদের শহর হিসাবেও পরিচিত, উদয়পুর ভারতের সবচেয়ে বেশি পরিদর্শন করা হানিমুন গন্তব্য হিসাবে পরিচিত। শহরটি মনুষ্যসৃষ্ট হ্রদ এবং বেশ কয়েকটি প্রাসাদ এবং দুর্গে পূর্ণ যা শহরকে ঘিরে থাকা রোমান্টিক বাতাসে মহিমার ইঙ্গিত যোগ করে। তাদের মধ্যে সেরা একটি হল প্রকৃতপক্ষে লেক প্যালেস বা জগ নিবাস যা বিশ্বের সবচেয়ে রোমান্টিক হোটেল হিসাবে বিবেচিত হয়।

শ্রীনগর (Srinagar)

শ্রীনগর (Srinagar)
শ্রীনগর (Srinagar): ভারতের সেরা হানিমুন গন্তব্য

শ্রীনগরকে ঘিরে থাকা বেশ কয়েকটি হ্রদের কারণে শহরটিকে কাশ্মীরি ভেনিস বলা হয়। সমুদ্রপৃষ্ঠ থেকে 1,585 মিটার উচ্চতায় অবস্থিত, শ্রীনগর শহরটি গ্রীষ্মের একটি নিখুঁত গন্তব্য এবং হানিমুন এবং নবদম্পতিদের মধ্যে বিখ্যাত। শ্রীনগরে বেশ কিছু রোমান্টিক অবস্থান যেমন মুঘল গার্ডেন, ফ্লাওয়ার গার্ডেন, ডাল লেক এবং সবচেয়ে জনপ্রিয় হাউসবোট রাইড।

মুন্নার (Munnar)

মুন্নার (Munnar)
মুন্নার (Munnar)

পশ্চিম ঘাটের মধ্যে ইদুক্কি জেলায় অবস্থিত, মুন্নার হল কেরালার একটি মনোরম হিল স্টেশন। শহরটি বেশিরভাগই সবুজ পাহাড়, চা এবং কফি এবং মশলা বাগানের সাথে সংকীর্ণ ঘূর্ণায়মান রাস্তাগুলি নিয়ে গঠিত যা এটিকে অত্যন্ত রোমান্টিক করে তোলে। অদ্ভুত শহরটিতে বেশ কয়েকটি রিসর্ট এবং হোটেল রয়েছে যা আপনাকে বিলাসিতা সহ প্রকৃতির অভিজ্ঞতা নিতে সহায়তা করবে।

কোডাইকানাল (Kodaikanal)

কোডাইকানাল (Kodaikanal)
কোডাইকানাল (Kodaikanal)

কোডাইকানাল অনুকূল জলবায়ুর কারণে ব্রিটিশরা একটি পার্বত্য শহর হিসাবে প্রতিষ্ঠিত করেছিল। 1947 সালে ভারতের স্বাধীনতার পর, রাজ্য সরকার শহরটিকে একটি পর্যটন কেন্দ্রে রূপান্তরিত করে। সমুদ্রপৃষ্ঠ থেকে 2,133 মিটার উচ্চতায় অবস্থিত, কোডাইকানাল ভারতের একটি জনপ্রিয় গ্রীষ্মকালীন রিসর্ট। শহরটি রোমান্টিক আস্তানায় পূর্ণ যেমন কোডাইকানাল লেক, ক্রোকারস ওয়াক, সিলভার ক্যাসকেড জলপ্রপাত এবং বেশ কয়েকটি মনোমুগ্ধকর লুকআউট পয়েন্ট।

দার্জিলিং (Darjeeling)

দার্জিলিং (Darjeeling)
দার্জিলিং (Darjeeling)

ভারতের চায়ের রাজধানী হিসেবে পরিচিত, দার্জিলিং নবদম্পতির জন্য একটি লোভনীয় রোমান্টিক গন্তব্য হিসেবেও পরিচিত। রোমান্টিক যাত্রাটি দার্জিলিং হিমালয়ান রেলওয়েতে একটি রূপকথার যাত্রার মাধ্যমে শুরু হয়, যা তার মনোরম অবস্থানের কারণে ইউনেস্কোর ওয়ার্ল্ড হেরিটেজ সাইটও। এছাড়াও শহরটি বেশ কয়েকটি হানিমুনিং হটস্পট এবং সুযোগ-সুবিধা দিয়ে পূর্ণ যা দম্পতিদের জন্য এটি একটি দুর্দান্ত জায়গা।

ডালহৌসি (Dalhousie)

ডালহৌসি (Dalhousie)
ডালহৌসি (Dalhousie)

হিমাচল প্রদেশে অবস্থিত, ডালহৌসি 1854 সালে ব্রিটিশ কর্মকর্তাদের জন্য একটি গ্রীষ্মকালীন পশ্চাদপসরণ হিসাবে প্রতিষ্ঠিত হয়েছিল। শহরটি সমুদ্রপৃষ্ঠ থেকে 1,970 মিটার উচ্চতায় অবস্থিত যেখানে পর্যটন শহরটির অর্থনীতির একটি বড় অংশ অবদান রাখে। ডালহৌসি মনোমুগ্ধকর স্থান, শক্তিশালী হিমালয়ের নৈসর্গিক দৃশ্য এবং বেশ কিছু বিলাসবহুল হোটেলে পরিপূর্ণ যা আপনার হানিমুনকে নিখুঁত করে তোলে।

কোভালাম (Kovalam)

কোভালাম (Kovalam)
কোভালাম (Kovalam)

আরব সাগরের প্রাকৃতিক দৃশ্যের জন্য পরিচিত, কোভালাম কেরালার সবচেয়ে রোমান্টিক সমুদ্র সৈকত গন্তব্যগুলির মধ্যে একটি। উপকূলীয় শহরটি তার 17-কিলোমিটার দীর্ঘ উপকূলরেখা নিয়ে গর্ব করে যা তার আদিম সৈকতের জন্য পরিচিত। লাইটহাউস সৈকত এবং ইভস বিচ হল সবচেয়ে জনপ্রিয় সমুদ্র সৈকত এবং আপনার প্রিয়জনের সাথে রোমান্টিক হাঁটার জন্য উপযুক্ত।

পন্ডিচেরি (Pondicherry)

পন্ডিচেরি (Pondicherry)
পন্ডিচেরি (Pondicherry)

পন্ডিচেরি ভারতের একটি কেন্দ্রশাসিত অঞ্চল এবং এটি ভারতের কয়েকটি ফরাসি উপনিবেশের আবাসস্থল হিসেবে পরিচিত ছিল। নির্মল সমুদ্র সৈকত এবং জলের তীরে প্রমোনাডের জন্য পরিচিত, পন্ডিচেরি মধুচন্দ্রিমাদের জন্য সবচেয়ে রোমান্টিক আস্তানাগুলির মধ্যে একটি। শহরটিতে প্রচুর পরিমাণে বিলাসবহুল রিসর্ট এবং হোটেল রয়েছে যা এই অদ্ভুত উপকূলীয় শহরে রোমান্টিক অবকাশের জন্য উপযুক্ত।

আরো পড়ুন: সিমলার দর্শনীয় স্থান | Best Visiting Places In Shimla

কুর্গ (Coorg)

কুর্গ (Coorg)
কুর্গ (Coorg)

কোডাগু বা কোডাভা নাড়ু নামেও পরিচিত, কুর্গ কর্ণাটক রাজ্যে অবস্থিত একটি মনোরম পাহাড়ি শহর। শহরটি তার বিস্তৃত কফির বাগান এবং জলপ্রপাতের সাথে পশ্চিমঘাটের সবুজ পাহাড়ের জন্য পরিচিত যা এটিকে প্রচুর রোম্যান্স প্রদান করে। এটি বেশ কয়েকটি স্রোত এবং নদীর আবাসস্থল এবং এটি কাবেরী নদীর উৎপত্তিস্থল হিসাবেও পরিচিত।

কুমারাকম (Kumarakom)

কুমারাকম (Kumarakom)
কুমারাকম (Kumarakom)

কুমারাকম কেরালার অন্যতম প্রধান পর্যটন কেন্দ্র এবং এটি কেরালার বিখ্যাত ব্যাকওয়াটারের সাথেও যুক্ত। এটি নৈসর্গিক ভেম্বানাদ হ্রদের তীরে অবস্থিত এবং হাউসবোট পর্যটনের কারণে এটি ভারতের একটি প্রধান হানিমুনিং হটস্পট। দক্ষিণ ভারতের অন্যান্য উপকূলীয় শহরগুলির থেকে ভিন্ন, কুমারাকম তার মাঝারি জলবায়ুর জন্যও পরিচিত, যা এটিকে একটি নিখুঁত রোমান্টিক গন্তব্য করে তোলে।

নৈনিতাল (Nainital)

নৈনিতাল (Nainital)
নৈনিতাল (Nainital)

নৈনিতাল তার প্রাকৃতিক দৃশ্য, বিলাসবহুল রিসর্ট এবং কুমায়নের পাদদেশে অবস্থানের কারণে ভারতের অন্যতম জনপ্রিয় পর্যটন এবং হানিমুন গন্তব্যস্থল। শহরটি তার মনোমুগ্ধকর ‘নাশপাতি-আকৃতির’ হ্রদের জন্য পরিচিত যা নৈনি লেক নামে পরিচিত, যা শহরটিকে একটি স্বতন্ত্রভাবে রোমান্টিক আভা প্রদান করে। এটিতে বেশ কয়েকটি ভিউ পয়েন্ট, পিকনিক এলাকা, বাগান এবং ট্রেকিং হটস্পট রয়েছে।

উটি (Ooty)

উটি (Ooty)
উটি (Ooty)

উটি ভারতের অন্যতম দর্শনীয় হিল স্টেশন এবং এটি দক্ষিণ ভারতের মনোরম নীলগিরি পাহাড়ে অবস্থিত। শহরটি 18 শতকের শেষের দিকে ব্রিটিশদের শাসনের অধীনে আসে এবং 19 শতকে মাদ্রাজের গ্রীষ্মকালীন রাজধানীতে রূপান্তরিত হয়। শহরটি তার ইউনেস্কো ওয়ার্ল্ড হেরিটেজ মাউন্টেন রেলওয়ে, বোটানিক্যাল গার্ডেন, গোলাপ বাগান, হ্রদ এবং বেশ কয়েকটি চূড়ার জন্য বিখ্যাত যা এটিকে একটি রোমান্টিক গন্তব্যে পরিণত করে।

তাওয়াং (Tawang)

তাওয়াং (Tawang)
তাওয়াং (Tawang)

সমুদ্রপৃষ্ঠ থেকে আনুমানিক 3000 মিটার উচ্চতায় বসে, তাওয়াং ভারতের সবচেয়ে অদ্ভুত এবং রোমান্টিক গন্তব্যস্থলগুলির মধ্যে একটি। উত্তর-পূর্বাঞ্চলীয় রাজ্য অরুণাচল প্রদেশে অবস্থিত, তাওয়াং তার বৌদ্ধ মঠ এবং আশেপাশের হিমালয় পর্বতমালা এবং ফুলের তৃণভূমির দৃশ্যের জন্য বিখ্যাত যা হানিমুন দম্পতিদের মধ্যে জনপ্রিয়।

লাক্ষাদ্বীপ (Lakshadweep)

লাক্ষাদ্বীপ (Lakshadweep)
লাক্ষাদ্বীপ (Lakshadweep)

কেরালার উপকূলে অবস্থিত, লক্ষদ্বীপ হল একদল দ্বীপ যা ভারতের একটি কেন্দ্রশাসিত অঞ্চল এবং তাদের ঝকঝকে সৈকত এবং নির্মল উপকূলের জন্য পরিচিত। দ্বীপপুঞ্জটি শুধুমাত্র ভারতের জনপ্রিয় হানিমুনিং গন্তব্যগুলির মধ্যে একটি নয়, এটি বেশ কয়েকটি অনাবিষ্কৃত দ্বীপ সহ দেশের বেশিরভাগ অনাবিষ্কৃত অবস্থানও অফার করে।

সিমলা (Shimla)

সিমলা (Shimla)
সিমলা (Shimla)

পাঞ্জাবের প্রাক্তন রাজধানী এবং এখন হিমাচল প্রদেশের রাজধানী, সিমলা ভারতের অন্যতম জনপ্রিয় হানিমুন স্পট (Best Honeymoon Destinations In India)। হিমালয় পর্বতমালার মাঝখানে অবস্থিত এবং আল্পাইন গাছ দ্বারা বেষ্টিত, সিমলার বেশ কয়েকটি আকর্ষণ রয়েছে যেমন বাজার, উষ্ণ প্রস্রবণ, গীর্জা, মন্দির এবং ঔপনিবেশিক যুগের ভবন যা এটিকে একটি পর্যটন গন্তব্য করে তোলে।

খাজ্জিয়ার (Khajjiar)

খাজ্জিয়ার (Khajjiar)
খাজ্জিয়ার (Khajjiar)

সমুদ্রপৃষ্ঠ থেকে 2000 মিটার উচ্চতায় একটি মনোরম স্থানে অবস্থিত, খাজ্জিয়ারকে প্রায়শই ভারতের মিনি সুইজারল্যান্ড বলা হয়। পশ্চিম হিমালয়ের শ্বাসরুদ্ধকর ধৌলাধর পর্বতমালা দ্বারা বেষ্টিত এই ভূখণ্ডটি বেশিরভাগ ফুল ও ঘাসের তৃণভূমি এবং পাইন বন নিয়ে গঠিত। মৃদু ঢালু সমতলভূমি, খাজ্জিয়ার হ্রদের তীরে ঘোড়ায় চড়া এবং আশেপাশের পাহাড় এবং গাছপালাগুলির দৃশ্য এটিকে মধুচন্দ্রিমার জন্য একটি অত্যন্ত রোমান্টিক অবস্থান করে তোলে।

মানালি (Manali)

মানালি (Manali)
মানালি (Manali)

হিমাচল প্রদেশের আরেকটি সুন্দর পাহাড়ী শহর মানালি, যা দুঃসাহসিক এবং নবদম্পতিদের জন্য একটি প্রিয় স্থান। শহরটি হিমালয় পর্বতমালার মধ্যে সমুদ্রপৃষ্ঠ থেকে 2,050 মিটার উচ্চতায় অবস্থিত এবং এটি একটি জনপ্রিয় স্কিইং এবং ট্রেকিং গন্তব্য। মানালির জলবায়ু গ্রীষ্মকালে উপভোগ্য থাকে এবং শীতকালে যখন তুষারপাত হয় তখন ঠান্ডা থাকে। হোটেল এবং রিসর্টের প্রাপ্যতা এটিকে ভারতে অনেক পরিদর্শন করা হানিমুন এবং অবকাশ যাপনের গন্তব্য করে তোলে।

লেহ (Leh)

লেহ (Leh)
লেহ (Leh)

লেহ দালাই লামা এবং ভারতে আশ্রয় নেওয়া তিব্বতি বৌদ্ধ সম্প্রদায়ের আসন হিসাবে বিখ্যাত। তা সত্ত্বেও, হিমালয় পর্বতমালার মধ্যবর্তী নৈসর্গিক অবস্থান এটিকে ভারতের একটি পছন্দের পর্যটন কেন্দ্র করে তোলে। এটি তার তিব্বতি মঠ এবং প্রচুর রোমান্টিক আস্তানাগুলির জন্য পরিচিত যা এটিকে হানিমুনিং অবকাশের জন্য উপযুক্ত করে তোলে।

মহীশূর (Mysore)

মহীশূর (Mysore)
মহীশূর (Mysore)

কর্ণাটকের বৃহত্তম শহর, মহীশূর হল ওয়াদেয়ার রাজবংশের ঐতিহাসিক রাজধানী এবং হায়দার আলী এবং টিপু সুলতান দ্বারা শাসিত ছিল। শহরটি তার বিশাল প্রাসাদ, গীর্জা, জলপ্রপাত এবং বেশ কয়েকটি বাগানের জন্য পরিচিত এবং প্রায়শই এটি ভারতের সবচেয়ে পরিচ্ছন্ন শহর হিসাবে পরিচিত। মহীশূরে বেশ কয়েকটি হ্রদ রয়েছে যা হানিমুনের জন্য একটি রোমান্টিক পরিবেশ প্রদান করে।

মহাবালেশ্বর (Mahabaleshwar)

মহাবালেশ্বর (Mahabaleshwar)
মহাবালেশ্বর (Mahabaleshwar)

মহাবালেশ্বর হল একটি মনোমুগ্ধকর পাহাড়ী শহর, যা মহারাষ্ট্রের পশ্চিমঘাটে অবস্থিত। এই শহরটি দেশের কয়েকটি চিরহরিৎ বনের মধ্যে একটি এবং আদিম ভেন্না লেকের জন্য পরিচিত যা পাহাড়ী শহরটিকে একটি মনোরম এবং রোমান্টিক পটভূমি দেয়। এটিকে কৃষ্ণা নদীর উৎস হিসেবেও বিবেচনা করা হয় যা একটি মন্দিরের অভ্যন্তরে একটি গরুর আকৃতির থলির মুখ থেকে প্রবাহিত হয়।

কাশৌলি (Kasauli)

কাশৌলি (Kasauli)

শহরটি 1842 সালে ব্রিটিশরা ব্রিটিশ কর্মকর্তাদের গ্রীষ্মকালীন আশ্রয় হিসাবে প্রতিষ্ঠিত করেছিল। সমুদ্রপৃষ্ঠ থেকে 1,927 মিটার উচ্চতায় অবস্থিত, কাসাউলি একটি অদ্ভুত পাহাড়ী শহর যা আপনার প্রিয়জনের সাথে রোমান্টিক ভ্রমণের জন্য উপযুক্ত। শহরটি তার সংকীর্ণ ঘূর্ণায়মান গলি এবং রাস্তাগুলির জন্য পরিচিত, যা রাজকীয় হিমালয়ের মধ্যে সবচেয়ে মনোরম স্পটগুলির দিকে নিয়ে যায়।

খান্দালা (Khandala)

খান্দালা (Khandala)
খান্দালা (Khandala)

নৈসর্গিক পাহাড়ি শহর খান্ডালা মুম্বাই থেকে প্রায় ৮০ কিলোমিটার দূরে অবস্থিত। পশ্চিম ঘাটের সবুজ পাহাড়ে পরিস্থিতি হওয়ায়, খান্ডালা মহারাষ্ট্রের একটি পছন্দসই সপ্তাহান্তের গন্তব্য এবং হানিমুনিং হটস্পট। বিচিত্র শহরে ভূষি লেক, ডিউকের নাক, করলার রক-কাট গুহা এবং ভাজা এবং টাইগারস লিপ ইত্যাদির মতো আকর্ষণীয় স্থান রয়েছে।

জয়সলমীর (Jaisalmer)

জয়সলমীর (Jaisalmer)
জয়সলমীর (Jaisalmer)

আপনি যদি রাজস্থানী জাঁকজমকের ইঙ্গিত সহ থর মরুভূমির সোনালী বালির অভিজ্ঞতা নিতে চান, তাহলে জয়সালমের আপনার পছন্দ। শহরটিকে সোনার শহর ডাকনামও দেওয়া হয় এবং এটি ভারতের সবচেয়ে রোমান্টিক এবং অফ-বিট হানিমুন গন্তব্যগুলির মধ্যে একটি। জয়সালমের তার মনোমুগ্ধকর টিলা, মন্দির কমপ্লেক্স, দুর্গ এবং পর্যটন ক্রিয়াকলাপের একটি বিশাল তালিকার জন্য পরিচিত যা রোমান্টিক দম্পতিদের নিযুক্ত রাখবে।

মুসৌরি (Mussoorie)

মুসৌরি (Mussoorie)
মুসৌরি (Mussoorie)

সত্যিকারের ‘পাহাড়ের রানী’, মুসৌরি উত্তরাখণ্ডের গাড়ওয়াল অঞ্চলে অবস্থিত একটি পাহাড়ি শহর। রাজ্যের রাজধানী দেরাদুনের কাছাকাছি অবস্থান মুসৌরিকে স্থানীয় এবং পর্যটকদের কাছে একটি জনপ্রিয় গন্তব্য করে তোলে। সমুদ্রপৃষ্ঠ থেকে 2,005 মিটার উচ্চতায় অবস্থিত, শহরটি প্রচুর রোমান্টিক অবস্থানে ভরা যেমন জলপ্রপাত, হাই লুকআউট পয়েন্ট, হ্রদ এবং প্রমোনেড।

মাথেরান (Matheran)

মাথেরান (Matheran)
মাথেরান (Matheran)

সমুদ্রপৃষ্ঠ থেকে প্রায় 800 মিটার উপরে মহারাষ্ট্রে অবস্থিত মাথেরান আরেকটি মনোরম শহর। পার্বত্য শহরটিকে ভারতের একমাত্র যানবাহন মুক্ত শহর হিসাবে সমাদৃত করা হয় এবং শহরে পরিবহন প্রধানত ঘোড়ার গাড়ি বা সাইকেল রিকশায় করা হয়। মাথেরান দুর্গ, লুকআউট পয়েন্ট, ল্যাটেরাইট রাস্তা যা অজানা জায়গায় নিয়ে যায়, ঔপনিবেশিক বাড়ি, বাংলো এবং অসামান্য প্রজাতির উদ্ভিদ ও প্রাণীজগতে পূর্ণ।

কুনুর (Coonoor)

কুনুর (Coonoor)
কুনুর (Coonoor)

উটির পরে তামিলনাড়ুর দ্বিতীয় সর্বাধিক জনপ্রিয় হিল স্টেশন, কুনুরও ভারতের সেরা হানিমুন গন্তব্য। এটি ইউনেস্কো ওয়ার্ল্ড হেরিটেজ নীলগিরি মাউন্টেন রেলওয়ের মাধ্যমে অ্যাক্সেস করা যেতে পারে যা ভারতের সবচেয়ে মুগ্ধকারী ট্রেন ভ্রমণের সৌন্দর্য প্রদান করে। শহরটি পর্যটন কার্যকলাপ এবং আকর্ষণ যেমন ট্রেকিং, লুকআউট পয়েন্ট, পুরানো দুর্গ, জলপ্রপাত এবং আরও অনেক কিছু দিয়ে পরিপূর্ণ।

রানিক্ষেত (Ranikhet)

রানিক্ষেত (Ranikhet)
রানিক্ষেত (Ranikhet)

উত্তরাখণ্ড রাজ্যে অবস্থিত, রানিক্ষেত হল ভারতীয় সেনাবাহিনী দ্বারা পরিচালিত একটি সেনানিবাস শহর। এটি সমুদ্রপৃষ্ঠ থেকে 1,859 মিটার উচ্চতায় মনোরম পশ্চিম হিমালয়ের মধ্যে অবস্থিত। রানিক্ষেত রোমান্টিক ভ্রমণে পূর্ণ যা আপনাকে পাইন বন, কুয়াশাচ্ছন্ন পাহাড়, পার্ক এবং প্রচুর পিকনিক স্পটগুলির মধ্য দিয়ে নিয়ে যায়। এটি তার প্রাচীন মন্দির এবং হিমালয়ের মনোরম দৃশ্যের জন্যও পরিচিত।

মুক্তেশ্বর (Mukteshwar)

মুক্তেশ্বর (Mukteshwar)
মুক্তেশ্বর (Mukteshwar) ভারতের সেরা হানিমুন গন্তব্য

মুক্তেশ্বর নৈনিতাল জেলায় অবস্থিত এবং এটি একটি দুর্দান্ত পাহাড়ী শহর, রোমান্টিক ভ্রমণের জন্য উপযুক্ত। শহরটি বিখ্যাত ভগবান শিবকে উৎসর্গ করা ঐতিহাসিক মন্দিরের জন্য, যা মুক্তেশ্বরের সর্বোচ্চ স্থানে অবস্থিত। মুক্তেশ্বরের যাত্রা আপনাকে ফুলের তৃণভূমি, সবুজ পাহাড়ের মধ্য দিয়ে নিয়ে যায় এবং হিমালয়ের মহিমান্বিত নন্দা দেবী শিখরের দৃশ্যও সরবরাহ করে। শহরে ক্যাফে, অ্যাডভেঞ্চার স্পোর্টস, হোটেল এবং বিলাসবহুল রিসর্টের মতো পর্যটন আকর্ষণও রয়েছে।

আরো পড়ুন: নারকান্দায় দর্শনীয় স্থান | Narkanda Tourist Places In Bengali

গুলমার্গ (Gulmarg)

গুলমার্গ (Gulmarg)
গুলমার্গ (Gulmarg)

জম্মু ও কাশ্মীরকে এর অপরূপ সৌন্দর্য এবং নৈসর্গিক অবস্থানের কারণে ‘পৃথিবীর স্বর্গ’ হিসাবেও উল্লেখ করা হয়েছে। গুলমার্গ শহরের নামকরণ করা হয়েছিল কাশ্মীরের শাসক এবং নামটির অনুবাদ “ফুলগুলির তৃণভূমি”। মনোরম পাহাড়ি শহরটি নৈসর্গিক অবস্থান, দুঃসাহসিক খেলা এবং রোমান্টিক আস্তানায় পূর্ণ এবং এটি ভারতে স্কিইং লোকেশন হিসেবে বিখ্যাত।

লাম্বাসিঙ্গি (Lambasingi)

লাম্বাসিঙ্গি (Lambasingi)
লাম্বাসিঙ্গি (Lambasingi)

‘অন্ধ্র প্রদেশের কাশ্মীর’ নামে পরিচিত, লাম্বাসিঙ্গি ভারতের সবচেয়ে অনাবিষ্কৃত পাহাড়ি শহরগুলির মধ্যে একটি। শহরটি দক্ষিণ ভারতের শীতলতম স্থানগুলির মধ্যে একটি যেখানে শীতকালে তাপমাত্রা শূন্য ডিগ্রি সেলসিয়াস পর্যন্ত থাকে। Lambasingi বেশিরভাগই ছোট ঘর, মরিচ এবং কফির বাগান নিয়ে গঠিত এবং এটি ভারতের সবচেয়ে আকর্ষণীয় হানিমুন স্পট (Honeymoon Places In India) গুলির মধ্যে একটি।

লোনাভলা (Lonavala)

লোনাভলা (Lonavala)

লোনাভলা হল মুম্বাইয়ের কাছে আরেকটি বিখ্যাত পাহাড়ী শহর এবং এটি পশ্চিমঘাটের সবুজ পাহাড়ে অবস্থিত। পাহাড়গুলি মুঘল এবং মারাঠাদের অধীনে এসেছিল কিন্তু 1871 সালে ব্রিটিশ গভর্নর লর্ড এলফিনস্টোন একটি শহর হিসাবে গড়ে তুলেছিলেন। পাহাড়ি শহরটি সহ্যাদ্রি পর্বতমালার নৈসর্গিক দৃশ্যের জন্য পরিচিত এবং এটি মহারাষ্ট্রের আরেকটি মনোরম পাহাড়ি শহর খান্দালার কাছাকাছি অবস্থিত।

চাম্বা (Chamba)

চাম্বা (Chamba)
চাম্বা (Chamba)

চাম্বা প্রাচীন রাভি নদীর তীরে অবস্থিত, যা সিন্ধু নদীর একটি উপনদী। সুন্দর পাহাড়ি শহরটি শক্তিশালী হিমালয়ের পাহাড়ের পাদদেশে 996 মিটার উচ্চতায় অবস্থিত। চম্বা রোমান্টিক স্পটগুলিতে পূর্ণ যা মন্দির, পুরানো সেতু, কেনাকাটা জেলা সহ নবদম্পতিকে প্রলুব্ধ করবে এবং এর ক্ষুদ্র চিত্রগুলির জন্য বিখ্যাত।

আলিবাগ (Alibag)

আলিবাগ (Alibag)
আলিবাগ (Alibag)

মহারাষ্ট্রের কোঙ্কন অঞ্চলে অবস্থিত, আলিবাগ হল একটি মনোরম সমুদ্রতীরবর্তী শহর, যা তার অদ্ভুত সৈকত, দ্রাক্ষাক্ষেত্র, ওয়াইনারি এবং দুর্গের জন্য বিখ্যাত। মুম্বাইয়ের গেটওয়ে অফ ইন্ডিয়া থেকে একটি ফেরির মাধ্যমে শহরে পৌঁছানো যায় যা প্রায় এক ঘন্টা সময় নেয়। মুম্বাইয়ের অত্যধিক জনাকীর্ণ সমুদ্র সৈকতের বিপরীতে, আলিবাগের সৈকতগুলি তাদের সাদা বালি এবং প্রমোনেডের জন্য পরিচিত যা একটি রোমান্টিক ভ্রমণের জন্য বিভিন্ন স্থান প্রদান করে।

আরাকু উপত্যকা (Araku Valley)

আরাকু উপত্যকা (Araku Valley)
আরাকু উপত্যকা (Araku Valley)

আরাকু উপত্যকা অন্ধ্র প্রদেশ রাজ্যের পূর্ব ঘাটে অবস্থিত একটি মনোরম হিল স্টেশন। সমুদ্রপৃষ্ঠ থেকে 911 মিটার উচ্চতায়, শহরটি তার বিদ্যমান কফি বাগানের জন্য পরিচিত যা বাতাসে একটি নেশাজনক সুবাস ছড়ায়। পাহাড়ী শহরটি বেশ কয়েকটি সংরক্ষিত বনের আবাসস্থল এবং ভারতের পূর্ব ঘাট পর্বতমালার কিছু মনোমুগ্ধকর দৃশ্য প্রদান করে।

জয়পুর (Jaipur)

জয়পুর (Jaipur)
জয়পুর (Jaipur)

রাজস্থানের রাজধানী শহর জয়পুর ভারতের সবচেয়ে রোমান্টিক স্থানগুলির মধ্যে একটি। শহরটি 18 শতকে মহারাজা সওয়াই জয় সিং দ্বিতীয় দ্বারা নির্মিত হয়েছিল এবং এখানে চমৎকার এবং ভালভাবে সংরক্ষিত পাহাড়ি দুর্গ, রাজপ্রাসাদ, মন্দির, বাগান এবং রাজপুত স্থাপত্যের অন্যান্য নমুনা রয়েছে। নভেম্বর থেকে ফেব্রুয়ারির মধ্যে শীতের মৌসুমে সবচেয়ে ভালো পরিদর্শন করা হয়, জয়পুর পারফর্মিং আর্টস এবং রাজস্থানী খাবার ও সংস্কৃতির কেন্দ্রও।

ওয়ায়ানাদ (Wayanad)

ওয়ায়ানাদ (Wayanad)
ওয়ায়ানাদ (Wayanad)

ওয়েনাড কেরালা রাজ্যে অবস্থিত এবং পশ্চিম ঘাটের মাঝখানে সমুদ্রপৃষ্ঠ থেকে 900 মিটার গড় উচ্চতায় অবস্থিত। মনোরম পাহাড়ের মধ্যে অবস্থান, ওয়েনাদকে রোমান্টিক আভা প্রদান করে যা শহরটিকে বিভিন্ন হ্রদ, নদী, সংরক্ষিত বন, কফি এবং চা বাগানের সাথে বাধা দেয়। এটি ঘূর্ণায়মান পাহাড়ী রাস্তার মাধ্যমে পৌঁছানো যায় যা আশেপাশের প্রকৃতির কিছু দুর্দান্ত দৃশ্য সরবরাহ করে।

ল্যান্সডাউন (Lansdowne)

ল্যান্সডাউন (Lansdowne)

ল্যান্সডাউন হল একটি ক্যান্টনমেন্ট পাহাড়ি শহর, যেটি ব্রিটিশ রাজের সময় ভারতের ভাইসরয় হিসেবে দায়িত্ব পালনকারী লর্ড ল্যান্সডাউনের নামে গড়ে ওঠা এবং নামকরণ করা হয়েছিল। সমুদ্রপৃষ্ঠ থেকে 1,700 মিটার উচ্চতায় অবস্থিত, ল্যান্সডাউন ভারতের সবচেয়ে অস্পর্শিত পাহাড়ী শহরগুলির মধ্যে একটি হিসাবে পরিচিত। শহরটি তার ঔপনিবেশিক যুগের স্থাপত্য, হ্রদ এবং মন্দিরের জন্য বিখ্যাত এবং হানিমুনের জন্য সবচেয়ে স্বপ্নময় স্থানগুলির মধ্যে একটি।

পাহলগাম (Pahalgam)

পাহলগাম (Pahalgam)
পাহলগাম (Pahalgam)

হিন্দুদের জন্য অমরনাথ তীর্থযাত্রার সূচনা পয়েন্ট হিসাবে পরিচিত, পাহলগাম জম্মু ও কাশ্মীর রাজ্যে অবস্থিত। পাহাড়ি শহরটি সমুদ্রপৃষ্ঠ থেকে 2,740 মিটার উচ্চতায় অবস্থিত এবং হিমালয়ের পার্শ্ববর্তী লিডার উপত্যকার কিছু বিস্ময়কর দৃশ্য প্রদান করে। শহরটি বেতাব উপত্যকা, কোলহোই হিমবাহ এবং অন্যান্যের মতো রোমান্টিক ভ্রমণের জন্য পরিচিত।

পুলিকাট (Pulicat)

পুলিকাট (Pulicat)
পুলিকাট (Pulicat)

পুলিকাট তামিলনাড়ু রাজ্যে অবস্থিত একটি প্রাচীন বন্দর শহর। এটি প্রাচীন এবং মধ্যযুগীয় সময়ে বেশ কয়েকটি শাসকের অধীনে এসেছিল এবং অবশেষে বিজয়নগর সাম্রাজ্য, পর্তুগিজ, ডাচ এবং ব্রিটিশ সাম্রাজ্যে চলে যায়। শহরটি তার সুন্দর পুলিকাট লেক, গির্জা, মন্দির এবং ঔপনিবেশিক ভবনগুলির জন্য পরিচিত।

যোধপুর (Jodhpur)

যোধপুর (Jodhpur)
যোধপুর (Jodhpur)

রাজস্থানের দ্বিতীয় মেট্রোপলিটন শহর হিসাবে বিবেচিত, যোধপুর একটি মধ্যযুগীয় শহর যা মারওয়ার রাজপুত রাজ্যের রাজধানী হিসাবে কাজ করেছিল। শহরটি তার বেশ কয়েকটি মহিমান্বিত দুর্গ, প্রাসাদ, হ্রদ এবং মন্দির এবং ভারতের সবচেয়ে পর্যটক বান্ধব কিছু লোকের জন্য পরিচিত। যোধপুর তার সমৃদ্ধ সংস্কৃতি এবং রন্ধনপ্রণালীর জন্যও পরিচিত যা এটিকে রোমান্টিক হানিমুনের জন্য একটি শীর্ষস্থান তৈরি করে।

তরকরলি (Tarkarli)

তরকরলি (Tarkarli)
তরকরলি (Tarkarli)

মহারাষ্ট্র রাজ্যে অবস্থিত একটি উপকূলীয় শহর, তারকারলি একটি বিখ্যাত পর্যটন এবং ভারতের সেরা হানিমুন গন্তব্য। শহরটি নীল জল এবং সাদা বালির সুন্দর উপকূলরেখার জন্য পরিচিত। এটি একটি বিখ্যাত স্কুবা ডাইভিং হটস্পট এবং এটি মানুষকে পরিষ্কার দিনে 20 ফুটের মতো গভীর দেখতে দেয়। ডলফিনের মতো সামুদ্রিক প্রাণীর দৃশ্যের সাথে আপনি প্রচুর জল ক্রীড়াও খুঁজে পেতে পারেন।

ঋষিকেশ (Rishikesh)

ঋষিকেশ (Rishikesh)

যদিও ঋষিকেশ তার ধর্মীয় কেন্দ্রগুলির জন্য পরিচিত, এটি নতুন বিবাহিত দম্পতি এবং দুঃসাহসিকদের জন্যও একটি বিখ্যাত স্থান। শহরটি অদ্ভুত নদীর তীর, ধ্যান প্রশিক্ষণ কেন্দ্র, যোগ কেন্দ্র এবং বেশ কয়েকটি নির্জন নদী সৈকতে পূর্ণ যা একটি রোমান্টিক রাতের আউটের জন্য উপযুক্ত। রিভার রাফটিং, ট্রেকিং, হাইকিং এবং বাঞ্জি জাম্পিংয়ের সুবিধা সহ ঋষিকেশ একটি অ্যাডভেঞ্চার স্পোর্ট হটস্পট হিসাবেও পরিচিত।

আউলি (Auli)

আউলি (Auli)
আউলি (Auli)

একটি নতুন আবিষ্কৃত স্কিইং গন্তব্য হিসাবে পরিচিত, আউলি সমুদ্রপৃষ্ঠ থেকে 3,049 মিটারের বিশাল উচ্চতায় অবস্থিত। শহরটি উত্তরাখন্ড রাজ্যে অবস্থিত এবং পাইন বন এবং হিমালয়ের শক্তিশালী শিখর দ্বারা বেষ্টিত। আউলি রোমান্টিক আস্তানা, বিলাসবহুল হোটেল, রোপওয়ে, হ্রদ এবং ভিউপয়েন্টে পূর্ণ যা এটিকে পর্যটন গন্তব্যের পর্যবেক্ষন করে তোলে।

শিলং (Shillong)

শিলং (Shillong)
শিলং (Shillong)

মেঘালয়ের রাজধানী শহর, শিলং সমুদ্রপৃষ্ঠ থেকে 1,500 মিটার উচ্চতায় অবস্থিত। পাহাড়ি অবস্থান এবং শিলংয়ের প্রাকৃতিক সৌন্দর্য তাদের ভূখণ্ড এবং জলবায়ুর সাদৃশ্যের কারণে এটি ‘প্রাচ্যের স্কটল্যান্ড’ উপাধিও অর্জন করেছে। শহরটি জলপ্রপাত, হ্রদ এবং ঘূর্ণায়মান পাহাড়ের মতো মনোরম অবস্থানে পূর্ণ যা এটিকে মধুচন্দ্রিমার জন্য উপযুক্ত জায়গা করে তোলে।

দমন ও দিউ (Daman And Diu)

দমন ও দিউ (Daman And Diu)
দমন ও দিউ (Daman And Diu) | ভারতের সেরা হানিমুন গন্তব্য

ভারতের একটি কেন্দ্রশাসিত অঞ্চল, দমন এবং দিউ একটি প্রাক্তন পর্তুগিজ উপনিবেশ এবং এটি ভারতের একটি বিখ্যাত অবকাশ যাপনের স্থান। শহরটি তার বিচিত্র উপকূলরেখা, ঔপনিবেশিক স্থাপত্য, গীর্জা এবং বেশ কিছু স্মৃতিস্তম্ভ এবং মন্দিরের জন্য পরিচিত। দিউ দ্বীপের পুরাতন পর্তুগিজ দুর্গ এটিকে একটি বিখ্যাত পর্যটন স্থান এবং দম্পতিদের রোমান্স করার জন্য উপযুক্ত করে তোলে।

গোকর্ণ (Gokarna)

গোকর্ণ (Gokarna)
গোকর্ণ (Gokarna) | ভারতের সেরা হানিমুন গন্তব্য

গোকর্ণ ভারতের কর্ণাটক রাজ্যে অবস্থিত একটি মনোরম এবং নির্জন উপকূলীয় শহর। শহরটির নামকরণ করা হয়েছে প্রাচীন শিব মন্দিরের নামে যা এটিকে হিন্দুদের জন্য একটি গুরুত্বপূর্ণ তীর্থযাত্রী গন্তব্য করে তোলে এবং এটি আঘনাশিনী এবং গঙ্গাবলি নদীর সঙ্গমস্থলে অবস্থিত। গোকর্ণ পশ্চিমঘাটের সবুজ পাহাড়ের পাশে অবস্থিত তার আদিম সমুদ্র সৈকতের জন্য পরিচিত এবং এটি ভারতের অন্যতম জনপ্রিয় হানিমুন স্পট।

এই স্থানগুলি শুধুমাত্র রোমান্টিক ভ্রমণের জন্য উপযুক্ত নয়, তবে পর্যটক এবং নবদম্পতিদের ভারতের সাংস্কৃতিক বৈচিত্র্য বুঝতে সাহায্য করবে। একটি নিখুঁত রোমান্টিক যাত্রাপথের জন্য আপনি এই জায়গাগুলিতে যেতে পারেন।


iNFO বাংলা দেখার জন্য ধন্যবাদ

By Tanmoy

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *