Benefits Of Karela In Bengaliকরলার উপকারিতা | Benefits Of Karela In Bengali

করলার উপকারিতা, চর্মরোগে করলার উপকারিতা, Benefits Of Karela Juice,Health Benefits of Bitter Gourd Benefits Of Karela In Bengali

করলা এমন একটি সবজি যা মোট জনসংখ্যার খুব কম লোকই খেতে পছন্দ করে, কিন্তু করলা সবুজ রঙের, এতে ছোট কাঁটা থাকে এবং এর ভিতরে সাদা বীজ থাকে করলা শুধুমাত্র কাঁচা অবস্থায় ব্যবহার করা হয়। করলার স্বাদ তেতো, তাই খুব কম মানুষই এটি খেতে পছন্দ করে, কিন্তু বর্তমান অসুস্থতার সময়ে করলা খুবই উপকারী। এটি বিশেষ করে ডায়াবেটিস রোগীদের জন্য দেওয়া হয় এটি একটি ওষুধ যা অনেক ওষুধের সাথে যুক্ত করা হয় তবে এটির স্বাদ সবার পছন্দ হয় না আচার এবং ভার্মিসেলির মতো অনেক আকারে কিন্তু স্টাফ করলা এবং পেয়াগি করলা খুব বিখ্যাত খাবার।

করলার উপাদান

করলা একটি তেতো সবজি হলেও এতে রয়েছে প্রচুর পরিমাণে অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট এবং ভিটামিন এ, বি এবং সি। করলাতে ক্যারোটিন, বিটাক্যারোটিন, আয়রন, জিঙ্ক, পটাশিয়াম, ম্যাগনেসিয়াম এবং ম্যাঙ্গানিজের মতো উপকারী উপাদান রয়েছে। এখন পর্যন্ত আমরা এটিকে শুধুমাত্র ভিটামিনের জন্য ভাবতাম কিন্তু শরীরের জন্য মিষ্টি, টক, তেতো এবং তেঁতুলের মতো সমান পরিমাণে সব স্বাদের প্রয়োজন যা আমরা শুধুমাত্র করলা থেকে পাই। করলা শরীর থেকে বিষাক্ত উপাদান দূর করতে সাহায্য করে করলার রস খেলে এতে কালো গোলমরিচের গুঁড়া ও লেবুর রস মেশানো হয়।

করলার উপকারিতা (Benefits Of Karela Juice)

  • করলা (করলা) রক্ত ​​বিশুদ্ধ করে।
  • করলা শরীরের চিনির মাত্রা নিয়ন্ত্রণ করে।
  • করলা সহজে হজম হয় এবং পেট পরিষ্কার করতে সাহায্য করে।
  • করলা গ্রীষ্মকালে পাওয়া যায়, তাই এটি একটি শীতল সবজি যা পেটের তাপ দূর করে এবং হজম প্রক্রিয়ার উন্নতি করে।
  • এটি কফ দূর করতেও সহায়ক।

করলার উপকারিতাগুলি (Health Benefits of Bitter Gourd) আরও বিস্তারিতভাবে লেখা হয়েছে এবং আপনার খাদ্যতালিকায় করলার কিছু রূপ যেমন করলার আচার, করলার সবজি, করলার রস, করলার তরকারি ইত্যাদি অন্তর্ভুক্ত করুন। করলা আপনার খাদ্যতালিকায় অন্তর্ভুক্ত করা যেতে পারে।

হজম ব্যবস্থার উন্নতিতে করলার অবদান (Karela Is good in digestion)

করলা সারা বছর পাওয়া গেলেও এটি গ্রীষ্মকালীন সবজি, তাই এটি হালকা এবং সহজে হজম হয়। করলাতে রয়েছে অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট যা শরীরে অক্সিজেনের মাত্রা বাড়ায় যার ফলে খাবার সহজে ভেঙে যায় এবং দ্রুত হজম হয়, ফলে হজম প্রক্রিয়ায় স্বস্তি পাওয়া যায়। তাই প্রতিদিন করলা খাওয়া উচিত।

ডায়াবেটিক রোগে করলার উপকারিতা (Benefits Of Karela For Madhumeh Rogi)Diabetic)

করলা ডায়াবেটিক রোগের জন্য সবচেয়ে উপকারী, যে কোনো আকারে এর সেবন রোগীদের স্বস্তি দেয়। তবে সাধারণত করলা শুকিয়ে এর গুঁড়া বিভিন্ন আকারে খাওয়ার জন্য দেওয়া হয়। সকালে ঘুম থেকে ওঠার পর এক চিমটি করলার গুঁড়ো এক চামচ মধুর সঙ্গে খেলে শরীরের সুগার নিয়ন্ত্রণে থাকে। করলা (করলা) শরীরের বিপাক নিয়ন্ত্রণ করে যার ফলে শরীরের সমস্ত সিস্টেম সঠিকভাবে কাজ করে এবং ভাল হজম প্রক্রিয়ার কারণে এর সাথে সম্পর্কিত সমস্ত সমস্যা হ্রাস পায়। এর জুস বানিয়ে পান করাও অনেক উপকারী।

স্থূলতা দূর করতে করলার ব্যবহার (Benefits Of Karela in Weight Reduction)

করলার মধ্যে প্রচুর পরিমাণে অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট থাকায় এটি প্রস্রাব ও মলের মাধ্যমে শরীর থেকে ক্ষতিকর ও বিষাক্ত উপাদান বের করে দেয়। এর জন্য করলার রসে কয়েক ফোঁটা লেবু মিশিয়ে সকালে খান। এটি সপ্তাহে 3 বার খেলেও উপকার পাওয়া যায়, এটি শরীরের বিপাক প্রক্রিয়ার উন্নতি ঘটায় যা হজম প্রক্রিয়াকে স্বাভাবিক করে, যার কারণে এটি ওজন নিয়ন্ত্রণে রাখে।

লেবুর রস, লেবুর উপকারিতা ও অপকারিতা

করলা দিয়ে জয়েন্টের ব্যথা থেকে মুক্তি (Benefits Of Karela In Joint Pain)

আজকাল প্রতি চতুর্থ ব্যক্তি জয়েন্টের ব্যথায় ভুগছেন এর জন্য করলা পাতার পেস্ট জয়েন্টে লাগালে রোগী আরাম পায়। এ জন্য করলা ও তিলের তেল সমপরিমাণে মিশিয়ে তেল তৈরি করে মালিশ করলে ব্যথা (Benefits Of Karela In Joint Pain)উপশম হয়।

চর্মরোগে করলার উপকারিতা (Benefits Of Karela in Skin Disease)

করলা খেলে রক্ত ​​বিশুদ্ধ হয় এবং চর্মরোগ নিরাময় হয়। করলা হজমশক্তির উন্নতি ঘটায় এবং তাই মুখে ব্রণের মতো রোগ হয় না। করলাতে প্রচুর পরিমাণে জল থাকায় এটি পেট পরিষ্কার করতে সাহায্য করে এবং এইভাবে চর্মরোগ প্রতিরোধ করে। করলার পাতারও বিশেষ গুণ রয়েছে এবং এর পেস্ট অনেক দাগ ও দাগ নিরাময় করে। এমনকি পোড়া শরীরের জন্যও উপকারী।

করলা দিয়ে কোষ্ঠকাঠিন্য থেকে মুক্তি (Relief From Constipation With Karela)

করলা হজমশক্তি উন্নত করে এবং কোষ্ঠকাঠিন্য থেকে মুক্তি দেয়। এছাড়াও এতে রয়েছে ফাইবার যা পেট পরিষ্কার রাখে। করলা প্রতিদিন শাক, রস বা গুঁড়ো আকারে খেলে কোষ্ঠকাঠিন্যের মতো রোগ থেকে মুক্তি পাওয়া যায়।

চোখের জন্য করলার উপকারিতা (Benefits Of Karela For Eye Diseases)

করলাতে রয়েছে ভিটামিন এ, তাই এটি চোখের জন্য খুবই উপকারী। এর ব্যবহারে, রাতকানা রোগের মতো রোগ নিরাময় হয়, এমন একটি রোগ যাতে রোগী দিনের বেলা বাড়ার সাথে সাথে খুব কম দেখতে পায়। কালো মরিচের সঙ্গে করলা খেলে চোখের জন্য বেশি উপকার পাওয়া যায়।

পেটের রোগে করলা থেকে মুক্তি (Benefits Of Karela For Stomach)

করলা এ এমন উপাদান রয়েছে যা পেটের কৃমি মেরে ফেলে এবং পেটের অনেক রোগ নিরাময় করে। করলার রসে অন্ত্রের রোগও সেরে যায়। হজম প্রক্রিয়া ভালো থাকায় পেটের অনেক রোগ সেরে যায়।

করলা হৃদরোগীদের জন্য খুবই উপকারী (Benefits Of Karela For Heart Patient )

করলা খেলে কোলেস্টেরল কমে এবং রক্তে শর্করার মাত্রাও নিয়ন্ত্রণে থাকে। এই দুটি উপাদানই হৃদরোগীদের জন্য উপকারী। এর সেবনের কারণে হার্ট অ্যাটাকের মতো ঝুঁকিতে আক্রান্ত রোগীদের থেকে আমরা আমাদের দূরত্ব বজায় রাখি।

করলা দেখতে যতই খারাপ হোক না কেন। খেতে যতই তেতো হোক না কেন, এর যে গুণাগুণ রয়েছে তা অন্য কোনো সবজিতে পাওয়া যায় না। তাই বলা হয় যারা কটু কথা বলে তারা কখনই ক্ষতিকর নয় এবং বাহ্যিক সৌন্দর্য কারো গুণের ইঙ্গিত দেয় না। করলা এমনই হয়।

করলার আরও অনেক উপকারিতা রয়েছে (Many Benefits Of Karela)

ক্রমিক সংখ্যাকরলার উপকারিতা (করলা)কারণ / কি আকারে
1ব্রণ থেকে মুক্তিরক্ত বিশুদ্ধ করে। যে কোনো আকারে হজম প্রক্রিয়ার উন্নতি ঘটায়
2কাশি উপশমকরলাতে রয়েছে ফসফরাস। যে কোন রূপে
3অ্যাজমার জন্য উপকারীকরলার রস এক কাপে তুলসীর রস ও মধু মিশিয়ে পান করলে হাঁপানি সেরে যায়।
4জন্ডিসে উপশম দিনকরলার রস দিনে দুবার খেলে লিভার সংক্রান্ত যাবতীয় রোগ সেরে যায়।
5মুখের ঘা থেকে মুক্তিকরলার রস দিয়ে গার্গল করুন। অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট হওয়ার কারণে
6মাথাব্যথা থেকে মুক্তি দেয়করলা পিষে এর পেস্ট লাগান। শীতলতার কারণে
7রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়াতেপ্রচুর পরিমাণে ভিটামিন ও মিনারেল

করলার অনেক উপকারিতা রয়েছে, বিশেষ করে ডায়াবেটিস রোগীদের জন্য। করলা লিভারের রোগের জন্যও ওষুধের মতো কাজ করে। করলা পেটের সব রোগে খুবই উপকারী।

করলার উপকারিতা পড়ে বুঝলাম এটা খুবই গুরুত্বপূর্ণ একটি সবজি যা খেলে অনেক রোগ থেকে মুক্তি পাওয়া যায়। তাই আমি এটা খাওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছি। আপনিও যদি নিজেকে ভালোবাসেন, তাহলে অবশ্যই এমন অনেক গুণসম্পন্ন সবজি খান। ওষুধ মনে করলেও খান।

আপনি কি করলা খাওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছেন? নাকি এসব ভাবছেন? নাকি আগে থেকেই করলা খেয়ে ফেলেছেন? কমেন্ট করে আমাদের জানান যাতে অন্য পাঠকরাও আপনার উৎসাহ দেখে করলা খেতে প্রস্তুত হন।


iNFO বাংলা দেখার জন্য ধন্যবাদ

By Tanmoy

আমি তন্ময় ঘোরই, কলকাতা, পশ্চিমবঙ্গের একজন ব্লগার এবং ইউটিউবার। আমি পাঁচ বছরেরও বেশি সময় ধরে ব্লগিং করছি, এবং আমি বিভিন্ন বিষয়ে সহায়ক তথ্য শেয়ার করতে পছন্দ করি।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *